রূপচাঁদা মাছের গুনাগুন – Benefits Of White Pomfret( Rupchanda).

Rupchanda Fish

বিশ্বব্যাপী সমাদৃত সামুদ্রিক মাছ বা সি ফিশের চাহিদা বেড়েছে বাংলাদেশেও। যদিও আমরা মাছে ভাতে বাঙালী , মাছের আশায় এখানে সেখানে ঘুরি, কখনো পাই কখনো শূন্য হাতে ফিরি । সামুদ্রিক এবং মিঠা দুই জাতের মাছ খেয়েই আমরা অভ্যস্ত। তবে সামুদ্রিক মাছ বা খাবার মানেই রূপচাদা কিংবা চিংড়িকেই বুঝি। রূপচাঁদা-একটি নরম কাঁটাযুক্ত সমতল দেহের মাছ। এটি একটি সি ফিস বা সামুদ্রিক মাছ।
এ মাছটি হার্টের সমস্যার ঝুঁকি হ্রাসসহ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের সহায়তা করে। কারণ রূপচাঁদা মাছ ওমেগা -3 ফ্যাটি অ্যাসিডের একটি নির্ভরযোগ্য উত্স। এটিতে প্রচুর পরিমাণে ফ্যাট নাই। রূপচাঁদা প্রোটিনেরও একটি উত্তম উত্স। সাদা রূপচাঁদা মাছটি দেখতে খুবই সুন্দর, খেতেও মজা। টমেটোর সসে রূপচাঁদা ফ্রাই আমার খুব প্রিয়। এই আইটেমের নাম শুনতেই জিভে পানি আসে আহা কি লোভনীয় দেখতে খেতেও তদ্রূপ। চট্টগ্রাম কিংবা কক্সবাজার নয়, রূপসী রূপচাঁদার কদর পুরো বাংলাদেশ জুড়েই। তবে অনেকেই কিন্তু রূপচাঁদা রাঁধতে জানেন না। বেশিরভাগই রূপচাঁদা কড়া আঁচে মচমচে করে ভেজে ফেলেন, কিংবা ভুনা রান্না করে ফেলেন। অথচ এই রূপচাঁদা দিয়েই যে কত রকমের রান্না সম্ভব তা জানা নেই অনেকেরই। সাদা রূপচাঁদা রূপে যেমন রূপসী খেতেও তেমন মজাদার। অতিথি আপ্যায়নেও মাছটি অতুলনীয়। বিয়ের অনুষ্ঠানে বা অন্য যে কোন অনুষ্ঠানে এ মাছটির খুব কদর। আগে বঙ্গোপসাগরে এই মাছটি প্রচুর পাওয়া যেত । বর্তমানে কিছুটা কম পাওয়া যায়। তাই দেশী রূপচাঁদা কিনতে চাইলে, আগে চিনতে হবে এবং দেখেশুনে চিনে কিনতে হবে। দেশি রূপচাঁদাটা একটু লম্বা আকৃতির হয়। রূপচান্দা সাধারণত ৪ প্রজাতির হয়।
তন্মধ্যে সাদা রূপচাঁদা মাছটি দেখতে খুবই সুন্দর।
দক্ষিণ আমেরিকার স্বাদুপানির মাছ লাল পাকু (বাংলাদেশে পিরানহা নামেই অধিক পরিচিত) বাংলাদেশে বাহারী মাছ হিসেবে প্রবেশ করলেও পরবর্তীতে হ্যাচরী মালিক ও মাছচাষীদের হাত ধরে প্রায় সারা দেশের চাষের পুকুরে চলে আসে। আশঙ্কা করা হয় এই মাছ আমাদের মুক্ত জলাশয়ে ব্যাপক আকারে চলে আসলে তা হবে আমাদের মাৎস্য জীববৈচিত্র্যের জন্য হুমকি স্বরূপ। তেলাপিয়া, নাইলোটিকা এবং সিলভার কার্পের মতো ‌এই মাছেরও সহজেই মুক্ত জলাশয়ে চলে আসাটাই স্বাভাবিক। ঠিক এরকম একটি সময়ে এই মাছের গ্রহণযোগ্যতা বাড়ানোর উদ্দেশ্যে উৎপাদক থেকে শুরু করে বিক্রেতাদের কাছে এই মাছের নামকরণ হয় থাই রূপচাঁদা বা থাই চাঁদা যা খুবই বিভ্রান্তিকর। সূক্ষ্ম দৃষ্টিতে দেশী রূপচাঁদা ও পাকু মাছের মধ্যে অনেক পার্থক্য থাকলেও আপাত দৃষ্টিতে কিছু মিল বর্তমান। এরই সুযোগ নিয়ে বাজারের অসাধু মাছ বিক্রেতারা পাকু মাছকে বিদেশী বা থাই রূপচাঁদা বা থাই চাঁদা নামে বিক্রি করে নিরীহ ক্রেতা সাধারণকে ঠকিয়ে আসছে।

এই জন্য আমাদের তাজা মাছ খাওয়া দরকার। যা অবশ্যয় ফরমালিন মুক্ত এবং এন্টিবাইটিক হীন হতে হবে । চাষ করা মাছে অনেক সময়ে এন্টিবাইটিক পাওয়া যায় ।

এক্ষেত্রে সিফিস বিডি আপনাকে সাহায্য করতে পারে। এখানে অর্ডার করা খুবই সহজ। শুধু মাত্র কল করুন (+৮৮০ ১৭৯০ ৮৮৫ ১৮৮) , মেসেজ করুন , ইমেইল করুন (rasheda.saraf@gmail.com) । আপনার অর্ডার যা কিনা সম্পূর্ণ ন্যাচারাল প্রক্রিয়ায় প্রস্তুত এবং প্যাকেট করা হয় এবং চলে আসবে সঠিক ঠিকানায়।

অসখ্য ধন্যবাদ সবাইকে কস্ট করে পড়ার জন্য।

photo 2020 09 26 13 20 16

নিবন্ধ লেখক:

জান্নাতুল ফেরদৌস

jannatul.fardous.erlpr@gmail.com

One thought on “রূপচাঁদা মাছের গুনাগুন – Benefits Of White Pomfret( Rupchanda).

  1. Md. Saiful Islam Porag says:

    ধন্যবাদ সী ফিস বিডি, এতো সুন্দর করে লেখার জন্য। আশা করি আরো সুন্দর কিছু আর্টিকেল পাবো । আপনাদের মাছ আসলেই অনেক ফ্রেস অ সুস্বাদু। আমি খেয়ে বলছি। আপনাদের মতো ট্রাস্টেট কোঃ বাংলাদেশে খুব রেয়ার। আপনাদের জন্য দোয়া ও শুভকামনা। ভালোবাসা অবিরাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WeCreativez WhatsApp Support
Our customer support team is here to answer your questions. Ask us anything!
👋 Hi, how can I help?